Posted on

ফেসবুক অ্যাড এর যে ব্যাপারগুলি অনেক গুরুত্বপূর্ণ

আপনার লক্ষ্য অনুযায়ী অ্যাড দেন

আপনি কি চান? আপনার ওয়েবসাইট এর ভিজিটির বারুক নাকি আপনার পেজের লাইক। এখানে প্রতিটার আলাদা আলাদা গুরুত্ব আছে। আপনি যদি চান আপনার একটা পোস্ট অনেকে দেখুক লাইক দিক, কমেনট করুক আর করলেন লাইক এর বুস্ট তাহলে কিন্তু হবে না। তাই ফেসবুক অ্যাড ম্যানেজার এ চমৎকার একটা অপশন আছে যে আপনি কিসের জন্য অ্যাড দিবেন। নিচে ছবি দিলাম একটা।

কি ধরনের অ্যাড দিয়ে শুরু করবেন

একদম নতুন ফেসবুক এ অথবা ফেসবুক এ প্রথম বুস্ট করাবেন? বুঝছেন না যে কি ধরনের অ্যাড দিবেন? তাহলে আমি বলবো লাইকের এর অ্যাড দিয়ে শুরু করেন। তবে কিছু ব্যাপার মনে রাখতে হবে এখানে

  • লাইকের বুস্ট করার আগে লক্ষ্য রাখবেন আপনার পেজ একদ্ম ফাঁকা কিনা, আপনাকে কিছু পোস্ট অ্যাড দেয়ার আগে দিয়ে নিতে হবে।
  • লাইক এর অ্যাড দিবেন এখানে ও আপনি টার্গেট করে দিবেন কারা আপনার পেজ লাইক দিবে। আপনি ইচ্ছা করলে অনেক লাইক নিয়ে আসতে পারেন কিন্তু সেই লাইক এ কোন লাভ হবে না। তাই টার্গেট করে লাইক আনেন

 

কল টু অ্যাকশান ভালো মত দেন

পেজের কল টু অ্যাকশান ঠিক মত দেন, অ্যাড দেয়ার আগে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনি একটা পোস্ট দিলেন, সেটা কেউ দেখলো, দেখার পর কিছু জানার থাকতে পারে অনেকের, তাহলে সে কিভাবে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে? সেটা পেজে ঠিক করে রাখেন।

ফেসবুক ইনসাইট ব্যবহার করুন

ফেসবুক ইনসাইট ফেসবুক এর চমৎকার একটা ব্যাপার। এখান থেকে আপনি দেখে নেন আপনার কোন পোস্ট মানুষ বেশি পছন্দ করলো, কোন বয়সের, কোন এলাকার মানুষ আপনার পেজে আছে, সেটা দেখে এরপর সিদ্ধান্ত নিয়ে অ্যাড এর টার্গেট ঠিক করেন। মনে রাখবেন টাইগার উড এর ফ্যান কিন্তু গলফ ক্লাব কিনবে না অথবা গুলশান বনানীর মত এলাকায় কম্পিউটার চালানোর কোর্সে স্কলারশিপ দিলে লাভ আছে বলে মনে হয় না। তাই এগুলি বুঝে শুনে করেন.

যে ৪ ভাবে আপনি অ্যাড চালালে অনেক ভালো হবে

১. পোস্ট এ অবশ্যই ছবি ব্যবহার করবেন, ছবি ব্যবহার করার অ্যাড অনেক বেশি এঙ্গেজমেন্ট হয়। যদিও এটা প্রায় সবাই করে। তাই এখানে বলতে চাই যে পোস্ট দিবেন সম্পর্কিত ছবি দেন। যে ছবি দিচ্ছেন সেটা যদি প্রোডাক্ট এর ছবি হয় তাহলে অবশ্যই মান সম্মত ছবি দেন। সার্ভিস এর ছবি হলে মানুষ এর ছবি ব্যবহার করতে পারেন। রঙের ব্যাপার এ একটু বলতে পারি সেটা হচ্ছে লাল রঙ। এগুলি কোনটাই নিয়ম না এরকম করলে আপনার এঙ্গেজমেন্ট ভালো হবে আশা করা যায়।
২. একটা ছবির জায়গায় আপনি এক সাথে ৬টা ছবি ও ব্যবহার করতে পারেন এতে আপনার দর্শক আরো অপশন পাবে আরো বেশি আগ্রহী হবে

৩. ছবির মধ্যে ২০% এর বেশি লেখা রাখবো না, রাখলে এঙ্গেজমেন্ট কমে যায় অনেক সময় ফেসবুক অ্যাড এপ্রুভ করে। নিচের লিঙ্ক দেখতে পারেন, চমৎকার ভাবে বুঝানো হয়েছে এখানে

https://www.facebook.com/business/help/980593475366490

https://www.facebook.com/ads/tools/text_overlay

৪. অ্যাড এর জন্য কোন সাইজ ব্যবহার করবেন। ফেসবুক সাজেস্ট করেন ১২০০x628 পিক্সেল ব্যবহার করার জন্য। এর বেশি কম ও করতে পারেন তবে খেয়াল রাখবেন প্রস্থ যেন কম পক্ষে ৬০০ পিক্সেল হয়।

ভালো টারগেটিং এর জন্য কিছু টিপস

১. অনেক বিস্তারিত টারগেটিং এর অপশন ব্যবহার করতে পারেন। যেমন ছেলেদের কাছে যাবে নাকি মেয়েদের কাছে, শুধু ঢাকা নাকি সারা বাংলাদেশ, শুধু ঢাকা হলে ঢাকার মধ্যে কোন কোন এলাকা, বাংলাদেশ হলে কোন কোন এলাকা ইত্যাদি ইত্যাদি আরো চমৎকার টারগেটিং অপশন আছে ফেসবুক এ। সেগুলি সুযোগ নেয়া উচিত হবে আপনার।
২. ফেসবুক অ্যাড দেয়ার সময় একটা অপশন থাকে আপনার অ্যাড কি আপনার পেজের ফ্যানরা ও দেখবে নাকি এর বাইরের মানুষ দেখবে। আমরা হয়তো অনেকেই মনে করি অ্যাড দিয়ে নিজের পেজের দর্শককে দেখিয়ে কি লাভ তারা তো এমনিতেই দেখবে, ব্যাপারটা আসলে এরকম না। খুব মানুষ মানুষ এ এভাবে দেখে। তাই আপনার অ্যাড আগে আপনার ফ্যানদের দেখান কারন তারা ইতিমধ্যে আপনাকে চিনে, জানে, তাই কোন অফার থাকলে তারা বেশি আগ্রহী হবে একদম নতুনদের থেকে।
৩. টারগেটিং এর সময় Potential Audience metar এর দিকে লক্ষ্য রাখুন, ফেসবুক এর আর একটা চমৎকার ব্যাপার। আপনার অ্যাড আনুমানিক কত মানুষের কাছে যাবে তার একটা ধারনা পাওয়া যায় এখান থেকে। এখান থেকে আপনি দেখে নেন যেন আপনার অ্যাড অনেক বেশি মানুষের কাছে যেন না যায় আবার অনেক কম মানুষের কাছে ও যেন না যায়।

 

৪. আপনার কাছে যদি আপনার কাস্টমারদের মেইল অ্যাড্রেস থাকে তাহলে সেটা চমৎকার ভাবে ব্যবহার করতে পারেন। ফেসবুক অ্যাড এ সেটা আপলোড করে দেন, তাহলে সেগুলি দিয়ে যে ফেসবুক একাউন্ট ওপেন করা হয়েছে তাদের কাছে আপনার অ্যাড চলে যাবে। আর এতা খুব গুরুত্বপূর্ণ যে আপনার কাস্টোমার আপনার নতুন কোন অফার সম্পর্কে জানলো। এটা অনেক বেশি কাজ করে একজন একদম নতুন দর্শক দেখার থেকে।

 

 

Posted on

ফেসবুক অ্যাড নিয়ে কিছু টিপস

 “Boost post” থেকে অ্যাড দিবেন না

আপনি যখন আপনার একটা পোষ্ট ফেসবুক পেজে দেন, সাথে সাথে পোষ্ট এর নিচে “Boost post” লেখা একটা বাটন থাকে আপনি ইচ্ছা করলে ই সেখানে গিয়ে আপনার পোষ্ট বুস্ট করতে পারেন কিন্তু আমি বলবো সেখান থেকে না করার জন্য।
এর বদলে আপনি Ads Manager অথবা Power Editor থেকে আপনার ফেসবুক অ্যাড দেন।

ইচ্ছা মত সময়ে ফেসবুক এ অ্যাড দিয়েন না

সময় মত কাজ করা এরকম একটা কথা তো আছে তাই না? আপনি যখন ফেসবুক এ অ্যাড দিচ্ছেন তখন অবশ্যই সময় চিন্তা করে নিবেন। আপনার দর্শক কারা, কোন দেশের ইত্যাদি ইত্যাদি, এগুলি চিন্তা করে অ্যাড না দিলে শুধু শুধু আপনার টাকা নষ্ট হবে, কাজের কাজ কিছুই হবে না।ধরেন আপনি চাচ্ছেন কর্মজীবী মহিলারা আপনার অ্যাড দেখুক। আপনার অ্যাড শুরু করলেন রাত একটায়, রাত একটায় তো তাদের জেগে থাকার কথা না, আপনার অ্যাড টারগেটিং এর কারনে মহিলাদের কাছে যাবে কিন্তু কর্মজীবী মহিলাদের কাছে জাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকবে।

“Daily Budget” এ অ্যাড দিবেন না

আপনি যখন ফেসবুক এ অ্যাড সেট করেন তখন দুইটা ব্যাপার থাকে একটা হচ্ছে Daily Budget আর একটা হচ্ছে Life Time budget। ভালো হয় আপনি যদি life time budget ঠিক করেন। আপনি এখানে খুব সহজেই ঠিক করে দিতে পারবেন আপনার বাজেট কত এবং আপনার অ্যাড কতদিন চলবে। লাইফ টাইম বাজেট মনে হচ্ছে আপনি এখানে প্রতিদিনের বাজেট ঠিক না করে একবারে কত টাকার অ্যাড দিতে চাচ্ছেন সেটা ঠিক করে দিচ্ছেন। তার মানে হচ্ছে এখানে ফেসবুক ঠিক করে দিবে আপনার অ্যাড এর খরচ কিভাবে হবে এবং আপনার অ্যাড সঠিক মানুষের কাছে যাবে। কিন্তু আপনি যদি ডেইলি বাজেট ঠিক করেন তাহলে আপনি এই বোনাসটা পাচ্ছেন না এবং আপনার অ্যাড শুধু অল্প কিছু মানুষের কাছে যাবে মানে হচ্ছে আপনার অ্যাড যেহেতু আপনি প্রতিদিনের বাজেট ঠিক করেছেন তাই ফেসবুক দিনের একটা সময়ে সেটা কিছু মানুষের কাছে নিয়ে যাবে তাহলে আপনি হয়ত অন্য সময়ে যারা ফেসবুক ব্যবহার করে তাদের কাছে যেতে পারছেন না।

ছবি তে লেখা দিবেন না অথবা একদম কম লেখা দিবেন

৪. অনেক বড় “না” হচ্ছে ফেসবুক অ্যাড এর ছবিতে একদম কম লেখা ব্যবহার করবেন। ফেসবুক এর একটা নিয়ম আছে সেটা হচ্ছে আপনি ফেসবুক অ্যাড এ ২০% এর বেশি লেখা দিতে পারবেন না অথবা দিলে ও আপনার অ্যাড কম ধীরে এবং কম মানুষের কাছে যাবে।
আপনি নিচে লিঙ্ক থেকে আপনার ছবি আপলোড করে দেখে চিতে পারবেন আপনার অ্যাড ফেসবুক এর নিয়ম অনুযায়ী হয়েছে কিনা
https://www.facebook.com/ads/tools/text_overlay
মনে রাখবেন ছবিতে লেখা বেশি থাকার কারনে আপনার অ্যাড ফেসবুক বাতিল ও করে দিতে পারে।

অ্যাড এর সাইজ 1200×628 Pixel রাখেন।

বুদ্ধিমত্তার সাথে টার্গেট করুন অ্যাড

আসলেই এটা জানা জরুরী যে আপনার দর্শক কারা। টার্গেট করে অ্যাড দেয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফেসবুক অ্যাড এর ক্ষেত্রে তাই এটা বুদ্ধিমত্তার সাথে ব্যবহার করুন।
এটা সত্যি এটার ফলে আপনার লিস্ট থেকে অনেক মানুষ বাদ যাবে কিন্তু সংখ্যাকে গুরুত্ব না দিয়ে মানকে গুরুত্ব দেন, সেটাই ভালো হবে। একটা বিজনেস এ আপনি ইচ্ছা করলে ই সবাইকে নিয়ে কাজ করতে পারবেন না আপনাকে অবশ্যই আপনার দর্শক কারা সেটা ঠিক করে নিয়ে কাজ করতে হবে। এখানে টাকা অথবা সংখ্যাটা একদম ই জরুরী না, আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার অ্যাড ঠিক মানুষের কাছে যাচ্ছে কিনা।

ফেসবুক এর নিয়ম ভঙ্গ করবেন না

ফেসবুক এর নিয়ম ভঙ্গ করে অ্যাড দিলে শুধু আপনার অ্যাড বাতিল না আপনার সম্পূর্ণ অ্যাড একাউন্ট বাতিল হয়ে যেতে পারে। তাই খুব ভালো করে ফেসবুক এর নিয়মগুলো জেনে নিন নিচের লিঙ্ক থেকে
https://www.facebook.com/policies/ads/

কন্টেন্ট এ অনেক কিছু লিখার দরকার নাই

আমার মনে হয় না এটা ঠিক হবে যে আপনি একটা রচনা লিখে আপনার টার্গেট করা দর্শককে আকৃষ্ট করবেন। তাই “See more” এ যাওয়ার আগেই লেখা শেষ করার চেস্টা করেন অথবা গেলে ও খুব বড় করবেন না।

Posted on

ফেসবুক বিজ্ঞাপন নীতিসমূহ

সংক্ষিপ্ত বিবরণ

বিজ্ঞাপন রিভিউ প্রক্রিয়া

ফেইসবুক বা ইন্সটাগ্রামে বিজ্ঞাপন প্রকাশের আগে সেগুলো রিভিউ করা হয় এবং এটা নিশ্চিত করা হয় যে তারা আমাদের Advertising Policy বা বিজ্ঞাপন নীতির সাথে সংগতিপূর্ণ কি না। সাধারণত বিজ্ঞাপন প্রদানের ২৪ ঘন্টার মধ্যে তা রিভিউ করা হয় এবং ক্ষেত্র বিশেষে ২৪ ঘন্টার থেকে বেশি সময় লাগে।

সবচেয়ে সাধারণ যে দুটি কারণে বিজ্ঞাপন গুলো রিভিউ প্রক্রিয়ায় বাতিল করে দেয়া হয় সেগুলো হচ্ছে-

বিজ্ঞাপনে “Facebook” শব্দের উল্লেখ

অনেক সময়ে বিজ্ঞাপনদাতাকে তার বিজ্ঞাপনে ফেইসবুক শব্দটি ব্যবহার করতে হয়। এধরণের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম পালন করতে হয়ে-

বিজ্ঞাপনদাতা যা করবেন-

  • ইংরেজিতে ফেইসবুক লেখার সময়ে বড় হাতের “F” ব্যবহার করে লিখতে হবে।
  • বিজ্ঞাপনের পুরো কনটেন্ট যে সাইজের এবং যে ধরণের ফন্ট ব্যবহার করে লেখা হয়েছে বিজ্ঞাপনের ভিতরে সেই একই ফন্টে এবং ফেইসবুক শব্দটি লিখতে হবে।

বিজ্ঞাপনদাতা যা করবেন না-

  • বিজ্ঞাপনের কনটেন্ট এর ভিতরে ফেইসবুক এর লোগো ব্যবহার করবেন না। কথায় লিখতে হবে।
  • ফেইসবুক শব্দটিকে সংক্ষিপ্ত করে লেখা (যেমন-F**book বা FB) বা ফেইসবুক লেখার পরে “S” ব্যবহার করে বহুবচন করা বা ফেইসবুক শব্দটিকে ক্রিয়াপদ হিসেবে ব্যবহার করা। যেমন- I have been Facebooking all day.
  • বিজ্ঞাপনে ফেইসবুক এর লোগোর সাথে আংশিক সাদৃশ্যপূর্ণ ছবি বা লোগো ব্যবহার করা।

সব বয়সের মানুষের জন্যে শোভনীয় নয় এমন ধরণের কনটেন্ট-

একে বলা হচ্ছে “Age-Restricted Material” বাংলাদেশের ক্ষেত্রে উদাহারণ স্বরূপ বলা যেতে পারে

ড্রাগ বা মদজাতীয় পানীয়ের ছবি। যেসব দেশে এ ধরণের বস্তুর উপরে নিষেধাজ্ঞা আছে সেসব দেশ টার্গেট করে এ ধরণের বস্তুর বিজ্ঞাপন দিলে তা অবশ্যই উক্ত দেশের আইন অনুযায়ী করতে হবে।

যা আপনার জানা উচিত

  1. বিজ্ঞাপন পলিসি  যে সকল ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ক) ফেইসবুক বা এর সংশ্লিষ্ট সার্ভিস বা AAAA/IAB Standard Terms and Conditions এর অধীনস্থ বিজ্ঞাপন এবং কনটেন্ট সমূহ, খ) ফেইসবুক অ্যাপ্লিকেশনে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপন, গ) ইন্সটাগ্রাম বিজ্ঞাপন। ফেইসবুকের বিভিন্ন বিজ্ঞাপন পণ্য বা সেবা Facebook’s Statement of Rights and Responsibilities (https://www.facebook.com/legal/terms, the “SRR”) এর আওতায় ফেইসবুকের এবং ‍স্টেটমেন্ট অভ রাইটস অ্যান্ড রেসপন্সেবিলিটিস (এস আর আর) অংশ হিসেবে বিবেচিত হবে।বিজ্ঞাপনদাতা যদি ইন্সটাগ্রাম বা ফেইসবুকের অন্যকোন পণ্য বা সেবা ব্যবহার করে থাকে তাহলে তিনি অন্যান্য আরো নিয়ম-কানুনের অধীনে থাকবেন।
  2. ফেইসবুক বিজ্ঞাপনদাতারা এর সাথে সম্পর্কিত যাবতীয় আইন-কানুনের মধ্যে পড়েন এবং তা মেনে চলতে বাধ্য। আইন মেনে না চললে নেতিবাচক ফলাফল হবে যেমন-বিজ্ঞাপন বাতিল বা বিজ্ঞাপনদাতার অ্যাকাউন্ট বাতিল।
  3. বিজ্ঞাপন প্রদানে অ্যাড টার্গেটিং এর ক্ষেত্রে আমরা স্পর্শকাতর ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করি না। বিজ্ঞাপনদাতার বিজ্ঞাপন প্রদানের জন্যে নির্বাচিত টপিক ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত বিশ্বাস, চরিত্র বা তাদের মূল্যবোধের সঠিক প্রতিফলক নয়।
  4. যদি কোন ব্যক্তি বিজ্ঞাপনদাতার পক্ষ হয়ে ফেইসবুকে বিজ্ঞাপন ব্যবস্থাপনা করে থাকে তাহলে তাকে প্রতিটি বিজ্ঞাপনদাতার জন্যে আলাদা বিজ্ঞাপন অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। কোন একটি অ্যাকাউন্টে দীর্ঘদিন ধরে একজন বিজ্ঞাপনদাতার জন্যে ব্যবহার করার পরে সেখানে আর কারো বিজ্ঞাপন দেয়া যাবে না। নতুন বিজ্ঞাপনদাতার জন্যে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। বিজ্ঞাপন ব্যবস্থাপককে এ ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে হবে যে বিজ্ঞাপনদাতা ফেইসবুকের যাবতীয় নিয়ম-কানুন মেনে বিজ্ঞাপন প্রদান করছেন।
  5. যে কোন অবস্থায় বা যে কোন সময়ে যে কোন বিজ্ঞাপন অনুমোদন, বাতিল বা সরিয়ে দেবার পূর্ণ ক্ষমতা ফেইসবুক রাখে। যেসব বিজ্ঞাপন ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে ফেইসবুক সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণার জন্ম দেয়, যেসব বিজ্ঞাপন ফেইসবুকের ব্যবসায়িক স্বার্থের পরিপন্থী, যেসব বিজ্ঞাপন সম্পর্কিত আইন ভঙ্গ করে তা সরিয়ে ফেলা হবে।
  6. যেসব বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের ক্ষেত্রে লিখিত অনুমতি নিতে হবে সে ধরণের বিজ্ঞাপন ফেইসবুক এর লিখিত অনুমতি প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রদর্শিত হবে।
  7. উপরোল্লিখিত নিয়ম সমূহ বিনা নোটিশে যে কোন সময়ে পরিবর্তন করা হতে পারে।

নিষিদ্ধ কনটেন্ট-

১. ফেইসবুকে বিজ্ঞাপনে কোন ধরণের নিষিদ্ধ পণ্য বা সেবার প্রচারণা বা বিক্রী করা যাবে না।

মাইনর (কিশোর, বাচ্চা, অপ্রাপ্তবয়স্ক) ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের টার্গেট করে যেসব বিজ্ঞাপন দেয়া হয় সেখানে এমন কোন পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দেয়া যাবে না যা তাদের শারিরীক এবং মানসিক বৃদ্ধিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে, তাদেরকে ভুল তথ্য প্রদান করে, তাদের দূর্বলতার সুযোগ নেয়, তাদের উপরে মানসিক চাপ সৃষ্টি করে।

২. বিজ্ঞাপনে নিম্নোল্লিখিত পণ্য বা সেবা সমূহের প্রচারণা বা বিক্রী করা যাবে না-

ক) অনুমোদনহীন, প্রেসক্রিপশন, বা মাদকদ্রব্য

খ) তামাক বা তামাক জাতীয় বিভিন্ন পণ্য

গ) ক্ষতিকর ঔষধ (ফেইসবুক কর্তৃক নির্ধারিত)

ঘ) অস্ত্রশস্ত্র, বিস্ফোরক দ্রব্যাদি

ঙ) প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যে পণ্য বা সেবা (পরিবার নিয়ন্ত্রণ বা গর্ভ নিরোধক পণ্য)

৩. ফেইসবুকে প্রদর্শিত যাবতীয় বিজ্ঞাপন ফেইসবুকের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড মেনে হতে হবে। ইন্সটাগ্রামের বিজ্ঞাপন Instagram Community Guideline এর অনুসারে হতে হবে। উপরন্তু বিজ্ঞাপনে নিম্নোল্লিখিত বিষয়াদির উল্লেখ থাকা চলবে না-

ক) যেসব কনটেন্ট মেধাস্বত্ব ভঙ্গ করে যেমন- কপিরাইট, ট্রেডমার্ক, পাবলিসিটি বা অন্যান্য ব্যক্তিগত বা কারো মালিকানাধীন রাইটস।

খ) যৌনতা সম্পর্কিত- নগ্নতা বা যৌন ইঙ্গিতমূলক, যৌন উদ্রেককর কোন ধরণের কনটেন্ট।

উদাহারণ-

গ) মানসিক আঘাত দেয়, কোন ধর্ম, গোষ্ঠীর সম্পর্কে নেতিবাচক তথ্য বা ইমেইজ, বিতর্কিত, হিংসাত্মক কর্মকান্ড সংবলিত কনটেন্ট

ঘ) যেসব কনটেন্ট কারো ব্যক্তিগত বিশ্বাস, ধর্ম, বর্ণ, ধর্মীয় বিশ্বাস, বয়স, লিঙ্গ, শারিরীক বা মানসিক প্রতিবন্ধী, আর্থিক অবস্থা, ক্রিমিনাল রেকর্ড এর সাথে সম্পর্কিত। উদাহারণ-

ঙ) ভুয়া, মিথ্যা তথ্য বা দাবি করে থাকে এমন ধরণের ব্যবসা সম্পর্কিত কনটেন্ট।

চ) রাজনৈতিক, সামাজিক বা অন্যান্য কোন কারণে বিতর্কিত কোন বিষয়কে ব্যবহার করে ব্যবসায়িক ফায়দা নেয় এমন ধরণের বিজ্ঞাপন

ছ) ফ্ল্যাশ অ্যানিমেশন, অডিও কনটেন্ট যা একজন ব্যক্তির কোন রকম ইন্টারঅ্যাকশন ছাড়াই হঠাৎ করে চালু হয়ে যায় বা কেউ ক্লিক করার সাথে সাথে চালু হয়ে যায়।

জ) যেসব ল্যান্ডিং পেইজে কোন কিছু নেই। কোন ফেইসবুক ব্যবহারকারী একটি লিঙ্কে ক্লিক করার পরে তাকে এমন একটি ল্যান্ডিং পেইজে নেয়া হলো যেটা সে বন্ধ করে বেরিয়ে আসতেও পারে না।

ঝ) স্পাইওয়্যার, ম্যালওয়ার বা ক্ষতিকারক কোন সফটওয়্যার বা এ সম্পর্কিত কোন বিজ্ঞাপন বা এ ধরণের কোন ওয়েবসাইটের বিজ্ঞাপন।

ঞ) অশুদ্ধ ভাষা, উচ্চারণ, প্রতীক, সংখ্যা বা অক্ষর সম্বলিত কোন বিজ্ঞাপন।

ট) এমন ছবি যা পণ্য সম্পর্কে ভুল ধারণা দেয়।ইলেকট্রিক গ্যাজেট এর  ছবিতে এমন কোন ফাংশনের চিত্র দেয়া যা আসলে সেই গ্যাজেটটিতে নেই।  উদাহারণ

ঠ) সেবনের আগে ও সেবনের পরে এমন ধরণের ছবি। একটি নির্দিষ্ট পণ্য বা সেবা ব্যবহারের আগে কারো ছবি এবং পরের ছবি যেখানে অবাস্তব ফলাফল দেখান হয়।

ড) বিভিন্ন ধরণের স্বল্পমেয়াদি ঋণ সম্পর্কিত বিজ্ঞাপন।

ঢ) বিজ্ঞাপনে ক্লিক করার পরে ভিজিটরকে এমন কোন ল্যান্ডিং পেইজে নিয়ে যাওয়া হলো যেখানে তার অভিজ্ঞতা মোটেও ভাল নয় (দেখা গেল সেই পেইজে ম্যালওয়ার ক্ষতিকারক কিছু আছে) বা এমন একটি ল্যান্ডিং পেইজ যেখানে ভুল সংবাদ বা তথ্য দেয়া আছে বা উক্ত পেইজে বেশির ভাগ কপি-পেস্ট বা অরুচিকর নিম্নমানের কনটেন্ট।

রেসট্রিকশন কনটেন্ট

১। অ্যালকোহলঃ   যেসব বিজ্ঞাপন বা রেফারেন্স অ্যালকোহল বিষয়ক প্রচার কার্য করে, (ক) সেসব প্রতিষ্ঠানকে স্থানীয় সকল প্রয়োগযোগ্য আইন , প্রয়োজনীয় বা প্রতিষ্ঠিত শিল্প কোড, গাইডলাইন, লাইসেন্স এবং অনুমোদন (খ) আবেদনের বয়স , স্থানীয় প্রয়োগযোগ্য আইন-কানুন এর সাথে সামাঞ্জস্য রেখে এবং ফেসবুক টার্গেটিং গাইডলাইন নিয়ম মেনে চলতে হবে । উল্লেখ্য যে, বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অ্যালকোহল ও এ ধরণের কোন রেফারেন্স দেয়া বিশ্বের কিছু দেশে সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ, তাদের মধ্যে আফগানিস্তান, ব্রুনাই, বাংলাদেশ, মিশর, গাম্বিয়া, কুয়েত, লিবিয়া, নরওয়ে, পাকিস্তান, রাশিয়া, সৌদি আরব, তুরস্ক, সংযুক্ত আরব আমিরাত বা ইয়েমেন উল্লেখযোগ্য ।

আরও তথ্য

টার্গেটিং: সকল প্রয়োগযোগ্য আইন-কানুন, শিল্প কোড ও নির্দেশনা সাপেক্ষে আপনি শুধুমাত্র অ্যালকোহল বিজ্ঞাপন নিম্নের নির্দিষ্ট বয়সের গ্রুপকে করতে পারবেন ।

  1. ভারতের বয়স সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য এখানে
  2. সুইডেনের ক্ষেত্রে ২৫ বছর কিংবা তার অধিক
  3. ক্যামেরুন, মাইক্রোনেশিয়া, পালাউ, সলোমন দ্বীপপুঞ্জ, শ্রীলঙ্কা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে ২১ বছর কিংবা তার অধিক বয়স
  4. জাপান, আইসল্যান্ড , থাইল্যান্ড এবং প্যারাগুয়ে এর ক্ষেত্রে ২০ বছর বা তারও অধিক বয়স
  5. ১৯ বছর কিংবা তারও অধিক বয়স কানাডা , কোরিয়া এবং নিকারাগুয়ে এর ক্ষেত্রে
  6. ১৮ বছর কিংবা তার অধিক বয়স (শুধুমাত্র যে দেশগুলো বিশেষভাবে উল্লেখ করা বিজ্ঞাপন পলিসির সেকশন ৩.১ ধারা অনুযায়ী)

২। ডেটিং: অনলাইন ডেটিং সার্ভিস বিষয়ক বিজ্ঞাপন শুধুমাত্র লিখিত অনুমতি সাপেক্ষে প্রযোজ্য। প্রয়োজনীয় ও গুণগত গাইডলাইন অনুযায়ী এটি মেনে চলতে হবে । বিস্তারিত এখানে   

৩। অনলাইন রিয়েল মানি গেমলিং বা গেম স্কিল: যেসব বিজ্ঞাপন অনলাইন রিয়েল মানি গেমলিং, লটারি, অনলাইন ক্যাসিনো , খেলা, বুক, বিংগো অথবা পোকার এর প্রচারণা করতে চায় তাদের প্রয়োজনীয় লিখিত অনুমোদন দরকার ।

৪। স্টেট লটারি: সরকার কর্তৃক পরিচালিত লটারির ফেসবুক বিজ্ঞাপন , টার্গেট অডিয়েন্স প্রযোজ্য আইন অনুযায়ী স্থির করা হবে ।

৫। অনলাইন ফার্মেসী: অনলাইন কিংবা অফলাইন ফার্মেসী বিষয়ক বিজ্ঞাপনের জন্যে যথোপযুক্ত লিখিত অনুমোদন নিতে হবে ।

৬।  পরিশিষ্ট : যে সমস্ত বিজ্ঞাপন ডায়েট এবং হারবাল বিষয়ক প্রচারণা করে থাকে , সেসমস্ত বিজ্ঞাপনের টার্গেট হবে কমপক্ষে নুন্যতম ১৮ বছর     বয়সীরা ।

৭। সাবস্ক্রিপশন সার্ভিসঃ সাবস্ক্রিপশন সার্ভিস এর জন্যে বিজ্ঞাপন অথবা যে সমস্ত প্রোডাক্ট বা সার্ভিস নেতিবাচক অপশন, স্বয়ংক্রিয় রিনিয়াল , ফ্রি টু পে কনভার্সন বিলিং প্রোডাক্টস বা মোবাইল মার্কেটিং একশন  এর অন্তর্ভুক্ত , সে সমস্ত সার্ভিসের বিষয় এখানে পাওয়া যাবে

৮। ব্র্যান্ডেড কনটেন্টঃ  ভেরিফাইড পেজ (ব্লু ব্যাজ সম্বলিত)থেকে ব্র্যান্ড কনটেন্টগুলোতে অবশ্যই অন্যদের কাছ থেকে নেয়া প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন দেয়া যায় কনটেন্ট টুল ব্যবহার করে । ব্র্যান্ড কনটেন্টগুলো এর বিজ্ঞাপনগুলো এডিটোরিয়াল ভয়েস দ্বারা প্রভাবিত হয় এবং অন্যপক্ষের বিভিন্ন প্রোডাক্ট, ব্র্যান্ড , বা স্পন্সর লোগো’কে বৈশিষ্ট্য দান করে ।

ভিডিও বিজ্ঞাপনঃ  ভিডিও এড এবং অন্য ধরণের এডগুলো অবশ্যই এ লিস্টের বিজ্ঞাপন পলিসি , কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড এবং অন্যান্য পলিসির অন্তর্ভুক্ত ।

ক) ব্যান কনটেন্টঃ ভিডিও এবং অন্যান্য একই রুপ বিজ্ঞাপনগুলোতে কোনরুপ অতিরিক্ত সহিংসতামূলক কৌশল ব্যভার করা যাবেনা ।

খ) বিনোদনবিষয়ক সীমাবদ্ধতাঃ মুভি ট্রেইলার, টিভি শো, ভিডিও গেম ট্রেইলার এবং অন্যান্য একইরুপ কনটেন্ট শুধুমাত্র ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এর কাছ থেকে লিখিত অনুমোদন সাপেক্ষে প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্যে অনুমোদিত এবং অবস্যই নূন্যতম ১৮ বছর বয়স হতে হবে ।

নিম্নোক্ত বিজ্ঞাপনগুলো কোনভাবেই অনুমোদিত নয়,

১। ড্রাগ ও অ্যালকোহল

২। অ্যাডাল্ট কনটেন্ট

৩। অভক্তিমূলক বা

৪। সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যমূলক

টার্গেটিং:

১। কোন প্রকার বিশ্বময়মূলক আচরণ, তাচ্ছিল্য কিংবা হয়রানি বা বিরক্ত করার জন্যে জন্যে টার্গেটিং অপশন ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্যে চেষ্টা করা যাবেনা ।

২। যদি আপনার টার্গেট বিজ্ঞাপন হয়ে থাকে একটা নির্দিষ্ট অডিয়েন্সকে ঘিরে ,তবে আপনাকে অবশ্যই প্রযোজ্য শর্তাবলি অনুসরণ করতে হবে ।

পজিশনিং:

১। প্রাসঙ্গিকতাঃ কোন একটি বিজ্ঞাপনের সকল লেখা , ছবি বা অন্যান্য মিডিয়া বিষয়ক জিনিস অবশ্যই সেই প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে ।

২। যথার্থতাঃ  বিজ্ঞাপনটি অবশ্যই কোম্পানি , প্রোডাক্ট, সার্ভিস বা ব্র্যান্ডকে প্রতিনিধিত্ব করবে ।

৩। ল্যান্ডিং পেজঃ প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস এর বিজ্ঞাপন কপি অবশ্যই ল্যান্ডিং পেজে বিজ্ঞাপন দেয়া পাতার সাথে সামাঞ্জস্য হতে হবে , এছাড়া যে সাইটের লিংক শেয়ার করা হবে তা কোন নিষিদ্ধ সাইটের লিংক, প্রোডাক্ট এর লিংক হতে পারবেনা ।

লিডস এডসঃ 

১. আমাদের লিখিত পূর্ব অনুমোদন ছাড়া  বিজ্ঞাপনদারা নিম্নলিখিত ধরনের তথ্য চেয়ে কোন লিডস এডস  প্রশ্ন তৈরি পারবে না ।

ক) একই ধরনের বা কাছাকাছি তথ্যের  জন্য  আপনি টেম্পলেট প্রশ্নের মাধ্যমে অনুরোধ করতে পারেন ।

যদি তথ্য চাওয়ার জন্য  টেম্পলেটে যে সব প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই আপনাকে টেম্পলেটের প্রশ্ন  ব্যবহার করতে হবে নতবা নিজে তৈরি করতে হবে। যেমন , আপনি যদি কারোর বয়স জানতে চান , তাহলে আপনাকে “Date of Birth” ব্যবহার করা উচিত । কিন্তু  “How old are you?” অথবা  “What year were you born?” এই ধরনের প্রশ্ন করা যাবে না ।

খ) সরকার সম্পর্কিত  শনাক্তকারী;

সামাজিক নিরাপত্তার নাম্বার , পাসপোর্ট নাম্বার ইত্যাদি সহ

গ) আর্থিক তথ্য;

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, ব্যাংক রাউটিং নাম্বার, ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড নম্বর, ক্রেডিট স্কোর, আয়, আয়কারী অথবা লোন সম্পর্কিত তথ্য সহ ।

ঘ)  অ্যাকাউন্ট নম্বর;

ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লায়ার নম্বর লয়ালিটি কার্ড নম্বর বা ক্যাবল/টেলিফোন অ্যাকাউন্ট নম্বর ইত্যাদি ।

ঙ)  স্বাস্থ্য বিষয়ক  তথ্য;

শারীরিক স্বাস্থ্য, মানসিক স্বাস্থ্য, চিকিৎসা বিজ্ঞান, চিকিৎসা শর্ত বা প্রতিবন্ধী সহ ।

চ)  বীমা বা ইনস্যুরেন্স  বিষয়ক তথ্য;

ইনস্যুরেন্স  পলিসি নাম্বার

ছ) ইউজার নেইম অথবা পাসওয়ার্ড;

ব্যবহারকারীর নাম এবং বর্তমান ও নতুন অ্যাকাউন্টের জন্য পাসওয়ার্ড সম্পর্কিত তথ্য । যেমন , আপনি আপনার লিড এডে কোন ব্যক্তিকে ইউজার নেইম এবং পাসওয়ার্ড তৈরি করতে বলতে পারেন না । যদি মানুষকে কোন একাউন্টে সাইন আপ করানোর প্রয়োজন হয় তাহলে , আমাদের  “Continued Flow” অপশন ব্যবহার করে আপনার সাইটে নিয়ে যেতে হবে ।

জ) গোষ্ঠী বা জাতিগত  তথ্য;

যেমন কোন ব্যক্তির শনাক্তকারী তথ্য যেমন , আফ্রিকান আমেরিকান, হিস্পানিক, এশীয় বা ককেশীয় ।

ঝ)  যৌন প্রবৃত্তি বা ব্যক্তিগত যৌন জীবন সম্পর্কে তথ্য;

ব্যক্তির কোন ধরনের লিঙ্গের প্রতি আগ্রহ সহ ।

ঞ)  ধর্ম বা দার্শনিক বিশ্বাস;

যেমন কাউকে জিজ্ঞেস করা যাবে না , তিনি খ্রিস্টান কিনা , অথবা তিনি মৃত্যুদণ্ডে বিশ্বাস করেন কি না ।

ট)  রাজনৈতিক অন্তর্ভুক্তি;

কোন ব্যাক্তি  গনতন্ত্র , রিপাবলিকান, বা স্বতন্ত্র দলে অন্তর্ভুক্ত বা কোন নেতাকে সমর্থন করেন কিনা সেই ধরনের প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা যাবে না । একই ভাবে , নির্বাচন সম্পর্কিত পরিকল্পনা অথবা পূর্বে নির্বাচনে ভোট সম্পর্কিত তথ্য জিজ্ঞেস করা যাবে না ।

ঠ)  ট্রেড ইউনিয়ন সদস্যপদ পদমর্যাদা;

কোন ব্যক্তি কোন সমিতি করে কি না বা কোন সমিতিতে অন্তর্ভুক্ত কি না এই ধরনের প্রশ্ন করা যাবে না ।

ড)  ফৌজদারী বা গ্রেফতার ইতিহাস;

কোন ব্যক্তি কোন ধরনের অপরাধের সাথে সম্পর্কিত কিনা তা জানতে চাওয়া যাবে না ।

 আমাদের ব্র্যান্ড সম্পদগুলি ব্যবহারঃ

১. বিজ্ঞাপনে ফেইসবুক অথবা ইন্সটাগ্রাম অনুমোদন অথবা অংশীদারিত্ব বা ফেইসবুকের কোন কোম্পানির অনুমোদন সম্পর্কিত কোন ধরণের তথ্য বিজ্ঞাপনে প্রতক্ষ বা পরোক্ষভাবে ইঙ্গিত দেয়া যাবে না ।

২. বিজ্ঞাপনে ফেইসবুক এবং ইন্সটাগ্রাম এর ব্রান্ড সংবলিত কনটেন্ট (পেইজ, গ্রুপ, ইভেন্ট বা যেসব সাইটে ফেইসবুক লগ ইন ব্যবহার করা যায়) ব্যবহার করলে তাদের ক্ষেত্রে বিজ্ঞাপনের টেক্সট-এ সীমিত আকারে “ফেইসবুক” বা “ইন্সটাগ্রাম” এর রেফারেন্স ব্যবহার করা যেতে পারে। এ ধরণের রেফারেন্সের মাধ্যমে উক্ত বিজ্ঞাপনে ক্লিক করলে কোথায় রিডাইরেক্ট করা হবে তা বুঝানো হয়।

৩. অন্য সব এড অথবা ল্যান্ডিং পেইজ আমাদের কপিরাইট , ট্রেডমার্ক অথবা একই ধরণের অস্পষ্ট  মার্কস ব্যবহার করা যাবে না । কিন্তু আমাদের  Brand Usage Guidelines অথবা the Instagram Brand Guidelines অথবা আমাদের পূর্ব অনুমোদন সাপেক্ষে ব্যবহার করা যাবে ।

ডাটা ব্যবহারের বিধিনিষেধঃ

১. ফেইসবুক অথবা ইন্সটাগ্রাম থেকে আপনার বিজ্ঞাপনের সংগৃহীত ডাটা অথবা তথ্যগুলো যাদের সাথে শেয়ার করছেন সে আপনার পক্ষের কেউ একজন এটা নিশ্চিত হয়ে নিন যেমন আপনার সার্ভিস প্রোভাইডার।  যা কিছু তথ্য আপনার সার্ভিস প্রভাইডার ফেইসবুক বিজ্ঞাপন থেকে সংগ্রহ করবে  তা রক্ষার দায়িত্ব আপনাকেই নিতে হবে । তথ্যগুলোর সবগুলোর ব্যবহার সীমিত করা এবং এইগুলোকে গোপন এবং নিরাপদে রাখবেন ।

২. ফেইসবুকের বিজ্ঞাপনের ডাটা কোন  উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না যেমন: রিটারগেটিং সহ একাধিক বিজ্ঞাপনদাতার ক্যাম্পেইন জুড়ে তথ্যগুলো মিশ্রিত করা    অথবা বা ট্যাগ দিয়ে পুনঃনির্দেশকরন । কিন্তু সমন্বিত অথবা অজ্ঞাতভাবে (যদি না ফেইবুক দ্বারা অনুমোদন  হয় ) ফেইসবুক বিজ্ঞাপন প্রচারণা. পারফর্মেন্সের উদেশ্যে ডাটা ব্যবহার করা যাবে ।

৩.   আপনার বিজ্ঞাপনের মানদণ্ড, কিছু আকার ধারনা করতে , কোন কিছু যুক্ত করতে , এডিট করতে , ব্যক্তির প্রোফাইল বাড়াতে , ব্যবহারকারীর মোবাইল ডিভাইস শনাক্তকরন , অথবা ব্রাউজার , কম্পিউটার অথবা ডিভাইস সম্পর্কিত শনাক্তকরন  সম্পর্কিত  ফেইসবুকের বিজ্ঞাপনের ডাটা ব্যবহার করবেন না  ।

৪. ফেইসবুকের বিজ্ঞাপনের ডাটা কোন এড নেটওয়ার্ক , এড এক্সচেঞ্জ , ডাটা ব্রোকার অথবা বিজ্ঞাপন বা মুদ্রায়ন  সম্পর্কিত সেবার সাথে ট্রান্সফার করা যাবে না।

 

Collected

Posted on

Facebook Marketing

The power of Facebook as a social networking resource knows no bounds so imagine how powerful this technology could be when used to market your products or services. With 500 million members and growing, Facebook has rapidly become the most popular platform used today for online advertising. Never before has it been easier to target people by their location, age, sex or interests. For the first time ever, online advertising has been hailed as being bigger than TV, radio or print methods of marketing. Now that’s certainly something worth thinking about.

Anybody can market their business on Facebook, from dentists to florists and banks to television corporations. Small business owners can also benefit greatly from localised Facebook campaigns – these days it’s so easy to target a local audience that are ready and waiting to use your services or buy from you. Local business marketing simply does not work without location targeting and Facebook does this beautifully.

For fb marketing help just call us 01719 34 56 99